ডেস্ক রিপোর্ট: ব্যয় সাশ্রয়ে কয়েকটি নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সোমবার (২৫ জুলাই) মন্ত্রিসভা বৈঠকে তিনি এসব নির্দেশনা দেন।

প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে এবং মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীরা সচিবালয়ের মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সভাকক্ষ থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৈঠকে যোগ দেন। বৈঠক শেষে সচিবালয়ে আয়োজিত প্রেস ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনাগুলো তুলে ধরেন।

Advertisement
কম খরচে বীর বাঙালির মতো নিউজপেপার ওয়েবসাইট তৈরি করতে চান?

আগ্রহী হলে ক্লিক করুন (www.bdwebsite.net)

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, যা না কিনলেই নয়, সেগুলোর কেনাকাটা চলবে। যেগুলো আপাতত না হলেও চলবে, সেগুলো স্থগিত থাকবে।

তিনি বলেন, বিদেশে প্রশিক্ষণের বিষয়ে এরইমধ্যে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। সরকারি কোষাগার থেকে বিল হয় এমন কোনও বিদেশভ্রমণ এখন মন্ত্রণালয়গুলো করতে পারবে না। তবে দরপত্রে থাকা দরদাতার ব্যয়ে প্রযুক্তি স্থানান্তর সংক্রান্ত যে সফর রয়েছে সেগুলো বন্ধ থাকবে না।

উৎপাদন বৃদ্ধির বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী জোর দিয়েছেন জানিয়ে তিনি আরও বলেন, কোথাও যদি এক-ফসলি জমি থাকে, সেখানে তিন ফসল করার বিষয়টি চিন্তা করতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী। বাড়ির উঠানে শাকসবজির চাষও বাড়াতে হবে।

সচিব বলেন, এরইমধ্যে আবার ইউক্রেনের ওডেসা বন্দরে বোমাবর্ষণ হয়েছে। চুক্তি হয়েছে ইউক্রেন থেকে খাবারটা বেরিয়ে আসবে। বন্দর ছাড়া আসবে কীভাবে? এটা তো আমাদের নিয়ন্ত্রণে নেই। সরকার বিভিন্ন উৎস থেকে খাবার ও সার আনার চেষ্টা করছে। আমাদের সতর্ক থাকতে হবে।

খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, আমাদের বারবার অনুরোধ করা হয়েছে। যেভাবে হোক আমরা যেন সাশ্রয়ী হই। আমি এরইমধ্যে আমার অফিস রুমে জানালার পর্দা তুলে দিয়েছি, লাইট বন্ধ রাখছি।